আদালতে আসেননি খালেদা, বিচারকের জিজ্ঞাসা

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার শুনানিতে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে উপস্থিত হতে আজও (বৃহস্পতিবার) অস্বীকৃতি জানিয়েছেন খালেদা জিয়া। কারা কর্তৃপক্ষ এক কাস্টডি ওয়ারেন্ট পাঠিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে। এ অবস্থায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চলমান এ দুর্নীতি মামলার বিচার কার্যক্রম সমাপ্ত চেয়ে রায় ঘোষণার আবেদন করেছে রাষ্ট্রপক্ষ।

আজ (বৃহস্পতিবার) নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে নিজের অসুস্থতার কথা জানিয়ে খালেদা জিয়া আদালতে উপস্থিত হবে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা খালেদা জিয়া আদালতে উপস্থিত না হলে মামলার কার্যক্রম সমাপ্ত করে রায় ঘোষণার জন্য আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল এ আবেদন করেন। আবেদনে তিনি উল্লেখ করেন, যেহেতু খালেদা জিয়া আদালতে আসতে চাচ্ছেন না, সেহেতু মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে রায় ঘোষণা করা এবং রায় ঘোষণার দিন ধার্যের জন্য আবেদন করছি।

অন্যদিকে খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া একটি আবেদন করেন। আবেদনে তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ও কাস্টডির বিষয়ে জানার জন্য তার সাথে দুই আইনজীবীর সাক্ষাতের অনুমতি চাই।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আগামী ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত খালেদা জিয়া জামিন মঞ্জুর করেন এবং রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের আদেশের জন্য একই দিন ধার্য করেন। একই সঙ্গে খালেদার জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত করতে আইনজীবীদের যথাযথ কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন করতে বলেন।

কমেন্ট করে সাথেই থাকুন