টেলিভিশনের জগতে প্রত্যাবর্তণ ঘটছে মনামী ঘোষের। একটি ধারাবাহিকের নায়িকার ভূমিকায় ফিরছেন তিনি। সম্প্রতি প্রকাশ পেয়েছে এই খবর। ধারাবাহিকের নাম ‘ইরাবতীর চুপকথা’। এই ধারাবাহিকে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করছেন মনামী। চরিত্রের নাম ইরাবতী।

সূত্রের খবর, এই ধারাবাহিকটির মূল চরিত্র ইরাবতী মিত্র। তাকে নিয়েই এগিয়ে যাবে ধারাবাহিক। এই ইরাবতী চরিত্রেই অভিনয় করছেন মনামী ঘোষ। ইরাবতী একজন চাকুরিজীবী মহিলা। এখনও অবিবাহিত। সে তার পরিবারকে ভালবাসে। তাদের ভালমন্দের কথা ভাবে। পরিবারের যত্ন নেয়। আর পরিবারের এভাবে যত্ন নিতে গিয়েই নিজের দিকে আর নজর দেওয়া হয়নি ইরাবতীর। বিয়ের বয়স ক্রমশ পেরিয়ে গিয়েছে। ইরাবতীর বয়স হয়ে গিয়েছে ৩২ বছর। কিন্তু এখনও বিয়ে করতে উঠতে পারেনি সে। এরপরই গল্প অন্যদিকে মোড় নেয়। ইরাবতী কি কোনওদিন বিয়ে করতে পারবে? নাকি চিরকাল অরক্ষণীয়া হয়েই থাকতে হবে তাকে?

বাংলা সিনেমা তো বটেই, টেলিভিশনেও নেহাত অপরিচিত নন মনামী। অনেক সিরিয়ালেই তিনি অভিনয় করেছেন। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘সাতকাহন’, ‘পুণ্যি পুকুর’, ‘বিন্নি ধানের খই’, ‘সোনার হরিণ’ ইত্যাদি। অভিনয় প্রতিভার জন্য অনেকবার প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। তাঁর অভিনীত ধারাবাহিক ‘বিন্নি ধানের খই’ খুব জনপ্রিয় হয়েছিল। তাঁর চরিত্র মোহরের প্রচুর সুখ্যাতি করেছিল দর্শক। অনস্ত্রিন মহিলা চরিত্রদের মধ্যে মোহর প্রচুর জনপ্রিয়তা পেয়েছিল।

মনামীর ‘ইরাবতীর চুপকথা’ তাঁর ‘বিন্নি ধানের খই’-এর মতো জনপ্রিয়তা পাবে বলেই মনে করা হচ্ছে। এই ধারাবাহিকের সঙ্গে আরও একটি ধারাবাহিক আসছে টেলিভিশনে। ‘বাজল তোমার আলোর বেণু’। একই টেলিভিশন চ্যানেলে এই ধারাবাহিকটিও সম্প্রচারিত হবে। এটি একটি সাধারণ মেয়ের গল্প। এর বেশি এখনও এই ধারাবাহিকটি সম্পর্কে আর কিছু জানা যায়নি।

 

কমেন্ট করে সাথেই থাকুন