ঘরে টিকটিকির উপদ্রব ঠেকাতে

প্রায় সবার বাড়িতেই দেখা যায় টিকটিকি। অনেকে এই প্রাণিকে হুমকি মনে না করলেও টিকটিকি খুবই বিষাক্ত। বিশেষ করে এই প্রাণির ত্বক ও বর্জ্য শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর।

অবশ্য অনেকে সতর্ক হয়ে এই প্রাণি দূর করার চেষ্টা করেন। এজন্য বাজার থেকে কিনে আনেন বিভিন্ন ধরনের ওষুধ বা স্প্রে। তবে এগুলো ছাড়া প্রাকৃতিকভাবেও আপনার বাসাকে টিকটিকিমুক্ত করতে পারবেন। এক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় অনুসরণ করতে পারেন-

রসুন

টিকটিকির উৎপাত কমাতে রসুন খুবই কার্যকরী। জানালার পাশে বা ভেন্টিলেটরে রসুনের কোয়া রেখে দিন। এর গন্ধে বাড়ি টিকটিকি মুক্ত হবে সহজেই।

ডিমের খোসা

টিকটিকির উৎপাত কমাতে নির্দিষ্ট কয়েকটি জায়গায় ডিমের খোসা ছড়িয়ে রাখুন। এই গন্ধে অল্প সময়েই টিকটিকি মুক্ত হবে জায়গাটি।

শুকনো মরিচ

গোলমরিচ বা শুকনো মরিচের গুঁড়ার গন্ধ টিকটিকির মস্তিষ্ক অবশ করে দেয়। শরীরের অস্বস্তি এড়াতে এই গন্ধ থেকে দূরে থাকতে চায় প্রাণিটি। এজন্য শুকনো মরিচের গুঁড়া পানিতে মিশিয়ে যেসব জায়গায় টিকটিকি বেশি সেখানে স্প্রে করুন। এতে প্রাণিটির উপদ্রব কমে যাবে। তবে বাসায় শিশু থাকলে এই পদ্ধতি অবলম্বনের সময় সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে হবে। কোনওভাবেই যেন শিশুরা এতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেটা আগে নিশ্চিত করুন।

পেঁয়াজ

পেঁয়াজের মধ্যে থাকা সালফারের গন্ধ টিকটিকি সহ্য করতে পারে না। তাই টিকটিকির চলাচলের পথে বা জানালার কোণে কয়েক টুকরো পেঁয়াজ কিছু সময়ের জন্য রেখে দিলে প্রাণিটি পালাবে।

 

এসডি/টিবি/১৮

কমেন্ট করে সাথেই থাকুন