তিতলি মোকাবেলায় ছুটি বাতিল

আসন্ন ঘুর্ণঝড় তিতলির কারণে দেশের উপকূলীয় ১৯ জেলার সকল সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এমনটি জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’ উপলক্ষে সার্বিক পরিস্থিতি ও প্রস্তুতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘আল্লাহর কাছে শুকরিয়া যে ঘূর্ণিঝড়টি সকালে ভারতের আঘাত হেনেছে। আমাদের এখানে আঘাত হানার আশঙ্কা ছিল। ঘূর্ণিঝড় তিতলির কারণে আমরা ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছি।’

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাসে জানা যায়, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় তিতলি বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ভারতের ওড়িষ্যা ও অন্ধ্র প্রদেশের উপকূলে আছড়ে পড়েছে।

গত কয়েকদিন ধরে বঙ্গোপসাগরে ঘুরতে থাকা গভীর নিম্নচাপটি শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে ওড়িষ্যা অতিক্রম করেছে। তিতলি এখন যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের সমুদ্র উপকূলের দিকে।

এর প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলীয় কয়েকটি জেলাও আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কার কথা জানিয়েছিল আবহাওয়া দফতর। এর মাঝে কক্সবাজারের উপকূলও তালিকায় ছিল। কিন্তু ঘূর্ণিঝড়টি ভারতে আঘাত হানলেও রক্ষা পেয়েছে কক্সবাজারের কুতুবদিয়া, মহেশখালী, পেকুয়া, চকরিয়া ও সদরের উপকূলীয় এলাকা।

এফএম/টিবি/১৮

কমেন্ট করে সাথেই থাকুন